নিবার্চনী বিধি লঙ্ঘনের অপরাধে সাংসদ পদ হারাতে চলেছে সানি দেওয়াল.


সানি দেওয়াল

নিজস্ব প্রতিনিধি : শপথ গ্রহণের 28 ঘন্টা কাটতে না কাটতে নির্বাচন কমিশনের বিধি লঙ্ঘনের অভিযোগ উঠলো বলিউডের সবচেয়ে রাগী হিরো সানি দেওয়ালের বিরুদ্ধে ৷ এমনকি সাংসদ পদ ও  হারাতে পারেন বিজেপির নবনির্বাচিত এমপি অভিনেতা সানি দেওল ৷ নির্বাচনী প্রচারে মাত্রাতিরিক্ত খরচের অভিযোগ উঠেছে তাঁর বিরুদ্ধে ৷ এরই মধ্যে ইতিমধ্যেই অভিনেতাকে নোটিশ পাঠিয়েছে নির্বাচন কমিশন ৷ অভিযোগ খতিয়ে দেখছেন নির্বাচন কমিশন, অভিযোগ প্রমাণিত হলে কড়া গুণাগার দিতে হতে পারে সানিকে ৷ এমনকি খোয়াতে পারেন সাংসদ পদও ৷



https://www.shop101.com/Shop0358381



প্রত্যেক প্রার্থীর জন্য নির্বাচনে খরচের মাত্রা বেঁধে দিয়েছিল নির্বাচন কমিশন ৷ সেই নিয়ম অনুসারে লোকসভা নির্বাচনের একজন প্রার্থী ৭০ লক্ষ টাকা অবধি খরচ করতে পারেন ৷ কিন্তু নির্বাচন কমিশনের কাছে অভিযোগ জমা পড়ে অতিরিক্ত খরচ করেছেন সানি ৷
দাবি করা হয় নির্বাচনী প্রচারের জন্য নির্বাচনী বিধি লঙ্ঘন করে প্রায় ৮৬ লক্ষ টাকা খরচ করেছেন এই অভিনেতা বিজেপি প্রার্থী ৷ এরপরই সানি দেওলকে নোটিশ পাঠায় কমিশন ৷

এই নির্বাচনী বিধি লঙ্ঘনে জয়ী প্রার্থীর সাংসদ পদ কেড়ে নিয়ে এবং রানার আপ প্রার্থীকে জয়ী হিসেবে ঘোষিতও করতে পারে কমিশন ৷ সেক্ষেত্রে অভিযোগের সত্যতা প্রমাণিত হলে সানি হারাতে পারেন নিজের সাংসদ পদ ৷

গুরুদাসপুর লোকসভা কেন্দ্র থেকে বিজেপির হয়ে লোকসভা নির্বাচনে প্রার্থী হয়েছিলেন বলিউডের এই অ্যাকশন হিরো ৷ পঞ্জাবের কংগ্রেস নেতা সুনীল জাকারকে ৮০ হাজার ভোটে হারিয়ে জয়ী হন সানি দেওল ৷ সাংসদ হিসেবে গতকাল লোকসভায় শপথ নেন তিনি ৷ তারপরই নির্বাচন কমিশনের  এই নোটিশ বিপত্তি ডেকে এনেছে সানি দেওয়ালের কাছে ৷

Comments

Post a Comment